Play Therapy
Helping People to Communicate

এটা হল একটা নতুন পদ্ধতি যেখানে খেলার মাধ্যমে বাচ্চারা আনন্দ পায় এবং এর ফলে তাদের মানসিক বৃদ্ধি সঠিকভাবে হয়। এটা একটা থেরাপিউটিক ও সাইকোলজিক্যাল পদ্ধতি যেটা বাচ্চাকে অন্যের সাথে যোগাযোগ স্থাপন ও সম্পর্ক স্থাপনে সাহায্য করে।  এই চিকিৎসা ব্যাবস্থা সাধারন খেলাধুলা থেকে একটু ভিন্ন, যার মাধ্যমে থেরাপিস্ট বাচ্চার সমস্যা অনুযায়ী খেলাধুলার মাধ্যমে তার সমস্যা গুলো কমিয়ে আনার চেষ্টা করেন। আর এভাবে বাচ্চা খেলতে খেলতেই নিজের সম্পর্কে ও পারিপার্শ্বিক জগত সম্পর্কে অভিজ্ঞ হয়ে ওঠে। প্লে থেরাপির মাধ্যমে বাচ্চা শেখে অন্যদের সাথে যোগাযোগ করতে, নিজের অনুভুতি প্রকাশ করতে, আচরণ পরিবর্তন করতে, সমস্যার সমাধান করতে ও বিভিন্ন ভাবে অন্যদের সাথে মিশতে।

 

শিশুর ক্ষেত্রে এই থেরাপি যেভাবে সাহায্য করে?

খেলা একজন শিশুর মনের শুদ্ধিকরণে সাহায্য করে। এবং তাদের সমস্যা সমাধান করার জন্য মানসিক শক্তি জোগায়। এই থেরাপির সাহায্যে শিশু তার মনের ভাব প্রকাশ করতে পারে। আরও কিছু শেখার ক্ষেত্রে এই থেরাপি বাচ্চাদের সাহায্য করে —

  • প্রাথমিকভাবে এবং তারপর ভালোভাবে বাচ্চাদের সূক্ষ্ম অথবা স্থূল কার্যবিষয়ক অঙ্গ সঞ্চালনের কৌশল আয়ত্ত করতে শেখায়
  • সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা এবং সমস্যা সমাধানের দক্ষতা বাড়ে
  • সামাজিক দক্ষতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে
  • অতিরিক্ত শক্তি ক্ষয় থেকে রেহাই দেয়
  • অনুভূতি এবং সমস্যা বুঝতে সহায়তা করে
  • নিজের মনের ভাব প্রকাশের মাধ্যমে তাদের আত্মবিশ্বাস মজবুত হয়

কল্পনাশক্তির বিকাশ এবং সৃষ্টিশীলতাকে বাড়াতে সাহায্য করে

 

কে পারে এই প্লে থেরাপি ব্যবস্থার আয়োজন করতে?

যে কোনও মানসিক স্বাস্থ্যের বিশেষজ্ঞ, তিনি সাইকিয়াট্রিস্ট হতে পারেন, বা সাইকোলজিস্ট অথবা সাইকিয়াট্রিক সোশ্যাল ওয়ার্কারও হতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে তাঁর বিশেষ প্রশিক্ষণ থাকা জরুরি। একজন থেরাপিস্ট স্বাধীনভাবে এই চিকিৎসা করতে পারেন। অথবা কোনও হাসপাতাল বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত থেকেও এই কাজ পরিচালনা করতে পারেন। যখন একজন রুগির জন্য থেরাপিস্টের ব্যবস্থা করা হবে, তখন কতগুলি বিষয় অবশ্যই মনে রাখতে হবে। সেগুলি হল—

  • এই দায়িত্বপালনের ক্ষেত্রে তিনি কি আদৌ যোগ্য?
  • তাঁর কি শিশুদের সঙ্গে দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে?

সবচেয়ে যা জরুরি তা হল, কয়েক সপ্তাহ বা মাস ধরে একজন থেরাপিস্টের সঙ্গে কাজ করার পরে একটি বাচ্চা এবং তার পরিবার স্বচ্ছন্দ বোধ করছে কি না,
তা খতিয়ে দেখা।

 

কোথায় পাবেন প্লে থেরাপি সার্ভিসঃ

রিক্যাপ কার্যকর প্লে থেরাপি প্রদান করে থাকে। আপনার শিশুর প্লে থেরাপির দরকার হলে রিক্যাপ-এ যোগাযোগ করতে পারেন। রিক্যাপের ঠিকানা

৬৭, পশ্চিম আগারগাঁও, শের-ই-বাংলানগর, ঢাকা। ফোন ০১৯৯১৯৩৩৩৯৯, ইমেইল- info@reccap.org.bd

 

পরিবারের সহযোগিতা

অধিকাংশ প্লে থেরাপির ক্ষেত্রে থেরাপিস্ট এবং বাচ্চাদের অংশগ্রহণই জরুরি। গ্রুপ থেরাপির জন্য একাধিক শিশুর দরকার পড়ে। অভিভাবকরা বাড়িতে বাচ্চাদের বিভিন্ন খেলাধূলার প্রশিক্ষণ দিতে পারে। বাচ্চাদের সঙ্গে কীভাবে যোগাযোগ স্থাপন করতে হয়, সেই বিষয়ে অভিভাবকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

অনেক সময় থেরাপিস্টরা বাচ্চাদের বাবা-মাকে গ্রুপ থেরাপির সময়ে বা ফ্যামিলি  থেরাপির জন্য আমন্ত্রণ জানাতে পারেন। এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাবা-মায়েরা তাদের বাচ্চাদের সমস্যাগুলি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা করতে সক্ষম হন। শিশুর প্রতি পরিবারের বন্ধন দৃঢ় করতেও এই পদ্ধতি সাহায্য করে। একে ফিলিয়াল থেরাপি বলা হয়।